চিরচেনা’র স্মৃতিচারণ

চিরচেনা’র স্মৃতিচারণ চিরচেনা প্রেরকের ঠিকানা হতে, বহুদিন কোনো ডাকপিওন আসেনি এ পথে! চিরচেনা কলারের ডায়ালপ্যাড হতে, বহুদিন কোনো নাম ভাসেনি মুঠোফোনের স্ক্রিনে! চিরচেনা শরীরের চিরচেনা নীল শার্টে, বহুদিন কোনো সুগন্ধি খুঁজিনি অকপটে! চিরচেনা নীল রঙের অন্তরালে, বহুদিন হারাই না আনমনে। তবু বারবার ‘কন্ট্যাক্টস’ খুলে, খানিকক্ষণ থমকে দাঁড়াই ‘চিরচেনা’র নামের কাছে! অতপর আধপোড়া হৃদপিণ্ডের সাথে, হারিয়ে […]

আরও পড়ুন

ভয়

ভয় সত্য কথা গুলো শুনতে সবসময় তিতা লাগে। তবুও বলছি। শিশুরা মায়ের কাছ থেকে অনেক কিছু শেখে তার মধ্যে ভীরুতা ও শেখে। কোনো শিশুই জন্মের পরে ভয় কি জিনিষ জানে না, সেটা মায়েরা খুব সুন্দর করে ঢুকিয়ে দেয়। একটি অবুঝ শিশু একটি লাশের উপর গিয়ে তার খেলার পুতুল নিয়ে আসতে পারবে কিন্তু একটি ৫ বছরের […]

আরও পড়ুন

নিয়‌তি‌ক্লিষ্ট দান

আজ আমি হেঁ‌টে যা‌চ্ছি একা- অথচ তু‌মি ডাক‌লে আমি ঠিকই যেতাম- আস‌লে আমি জান‌তেই পা‌রি‌নি- বৈধ ও অবৈধতার সুক্ষ ভেদা‌ভেদ, জৈ‌বিক ও আধ্যা‌ত্মি‌কের মধ্যকার দূরত্বটুকু? তাই চাপা রোমা‌ন্টিকতা নি‌য়ে নিঃশ‌ব্দে বে‌ড়ে উঠে‌ছিল গোলা‌পের বাগান! আর এক‌দিন তোমার চো‌খে ময়া‌লের স্নিগ্ধতার অন্তর্বাস নজ‌রে এ‌লে, না বলা প্রণ‌য়ের কথা ভে‌বে আমার হলো দিবাঅবসান- এ যেন স‌ত্যি তোমার […]

আরও পড়ুন

বিভ্রান্ত

সহস্র প্রণয়ী লতার, নিদ্রাহীন অবসাদের ক্রন্দনেও ভাঙ্গে না; মুখোশীয় প্রিয়তমার ভঙ্গুর দেহ! তবে; সে কী নিছক কল্পনা! যাকে শুধুই, বিরহের নামে ডাকা যায়। লেখা যায় অন্ধ রাজার কাব্য! একটি অসমাপ্ত ভালোবাসার উপন্যাস। লেখালেখি, অপূর্ব দাস অপু।

আরও পড়ুন

“গনতন্ত্রের মিছিল”

আমি একাই ছিলাম গনতন্ত্রের মিছিলে। এক দুই তিন করে এলো হাজারো গনতন্ত্রকামী মানুষ। মিছিলে মিছিলে ভরে গেল শহরের রাজপথ,অলিগলি। শ্লোগান আর শ্লোগান গনতন্ত্রের দাবিতে শ্লোগান। আমরা গনতন্ত্র চাই, ভোটের অধিকার চাই, মত প্রকাশের স্বাধীনতা চাই, স্বৈরশাসন থেকে মুক্তি চাই। হঠাৎ গর্জে উঠলো, পুলিশের পোশাকে আবৃত অমানুষের হাতের আগ্নেয় অস্ত্র। দ্বিকবিদিক ছুটে প্রানে বাঁচলো বেশিরভাগ সবল […]

আরও পড়ুন

রুদ্ধ আত্মা

রাতের পৃথিবী ঘুমিয়ে গেলে নির্বাসিত দেহ পরবাসী আত্মা মুক্তির নীলনেশায় জেগে উঠে, বৃত্তের শৃঙ্খলে আবদ্ধ থেকে অস্থির যৌনাচারে প্রবৃত্ত হয় অনিচ্ছার ইচ্ছেটা মূল্যহীন রয় , অন্ধকার আড় হয় বাঁকা হেসে ঘড়ির কাঁটার মতো বাধ্য হয়ে পালাতে পারেনা ঘুরে ফিরে আসে, সকালের আলোয় আঁকা রেখায় খোলগুলি সব পাপপুণ্য কুড়ায় মৃত্যুর ওপারে মুক্তির আশায়, দন্ড হয়না শেষ […]

আরও পড়ুন

হয়তো

অভিমান গুলো নোনতা আর তেতো মূল্যহীনতার মূল্য দিতে শুধু সময়ই পারে, তাই আকাশের রং বদলের আপেক্ষিক ত্রুটি গুলোর অনুতাপ সমীকরণ চলছে। নাই বা থাকুক এখন তোমার আমার তেমন কোন মুহূর্ত। তবুও চিরন্তন সত্য, সময় আর আবেগ কখনো একরকম থাকে না।   -লুবনা লিমি

আরও পড়ুন

#সহ্য

ব্যাথা টা ছড়িয়ে পড়ল ক্রমশঃ ঘাড় থেকে পিঠ হাত বুক পাঁজর সর্বত্র, হৃদয়ে আঘাত হানলো সবশেষে। তখন প্রাণ ছুয়ে আছে শুধু মলিন কাব্যতা। যেখানে আঘাত করো… সেখানে তো তুমিই থাকো..! তাই তোমার দেয়া কষ্ট টা ফিরে গেছে অভিমানী ঝড়ের সাথে। বিশ্বাস করো আমি যত্নের কোনো ত্রুটি করিনি! শুধু একটু হেসেছি মাত্র। আমাকে আঘাত করার জায়গা […]

আরও পড়ুন

বেমানান কবি

ভাব ও ভাষায় গরমিল বিস্তর, যথাযথ শব্দের নেইতো খবর, ছন্দ-মাত্রার জ্ঞান নেই বিন্দু, দেখইনি কভু অন্তমিল সিন্ধু। এবার আবার দাবি প্রচ্ছদের কেমনে মিটাবে সাধ কাব্যের? এবার বেমানানের চাদর খোল, পদ্যকে প্রণামি নির্জনে চলো। লেখালেখি মোঃ নজরুল ইসলাম মোল্লা

আরও পড়ুন

দেয়াল

মৌনতা যখন ধূসর দেয়াল হয়ে হৃদয় কে ঘিরে ধরে, খোলা জানালার ও-পাশ থেকে ছিটকে আসা অন্ধকার! আত্মার কাতরতায় পতিত হওয়া দু’ফুটা অশ্রুজল অনেকটা স্বস্তির কারণ! লেখালেখি, –মোহাম্মদ ফয়সাল হাওলাদার।

আরও পড়ুন