“স্বাধীন হয়েছি ভারতের গো’লা’মি করার জন্য নয়”- ভিপি নুর

জাতীয় রাজনীতি

মুজিববর্ষে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ঢাকা সফর প্রতিহত করার ঘোষণা দিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) ভিপি নুরুল হক নুর।এ ছাড়া মোদিবিরো’ধী সাধারণ মানুষের মি’ছিলে পু’লিশি হাম’লা ও ময়মনসিংহে মোদিকে ক’টূক্তি’র দা’য়ে যুবক গ্রেফ’তারের সমালোচনা করেছেন তিনি। বৃহস্পতিবার নিজের ফেসবুক পেজে ডাকসু ভিপি বলেন, ‘হাতিয়ায় মোদিবিরো’ধী সাধারণ মানুষের মিছিলে পু’লিশি হাম’লা, ময়মনসিংহে মোদিকে ক’টূক্তির দা’য়ে যুবককে গ্রেফ’তার!’

তিনি বলেন, ‘মোদির দা’লালরা কি তা হলে এ দেশের র’ন্ধ্রে র’ন্ধ্রে ঢুকে গেছে? যারা এ দেশে থেকেও মোদি তথা ভারতের ন’গ্ন দা’লালি করেন, বাংলাদেশকে কি আপনারা ভারতের অঙ্গরা’জ্য বানাতে চান?’‘তবে এ দেশের জনগণের কথা শুনে রাখুন– এ দেশের জনগণ পিন্ডি থেকে মুক্ত হয়েছে দিল্লির গো’লামি করার জন্য নয়।’

ভিপি নুর বলেন, ‘বাংলাদেশের স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্ব রক্ষায় যে কোনো আগ্রাসী অপশক্তির বিরুদ্ধে লড়াই-সংগ্রাম চলবে। দেশপ্রেমিক নাগরিকদের এ লড়াইয়ে অংশগ্রহণের আমন্ত্রণ।’

Share0TweetShareনিউজ ডেস্ক : একাত্তরের ঘা’তক দা’লাল নি’র্মূ’ল কমিটির সভাপতি শাহরিয়ার কবির বলেছেন, ভারতের সাম্প্রতিক ঘটনাকে নিয়ে যারা নরেন্দ্র মোদির সফর ব’ন্ধ করতে আন্দোলন করছে তারা দেশের ভালো চায় না। এর মাধ্যমে তারা বাংলাদেশ ও ভারতের মৈত্রিকে অসম্মান করতে চায়, মুজিববর্ষে অনুষ্ঠানকে প্রশ্নবি’দ্ধ করতে চায়। এই কু’চ’ক্র মহলটিকে প্রতিহ’ত করতে হবে।

আজ শনিবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ দা‌বি জানা‌ন। শাহরিয়ার কবির ব‌লেন, আগামী ১৭ মার্চ মুজিববর্ষ পালন করবে বাংলাদেশ। এই অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার জন্য আসবেন বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় বন্ধু রাষ্ট্র, ১৯৭১ যাদের অসামান্য অবদানের কথা ভুলবার নয়। সে দেশের প্রধানমন্ত্রীর সফর এই অনুষ্ঠানকে আরো সাফল্য মন্ডিত করবে। এই অনুষ্ঠানের সঙ্গে ভারতের সাম্প্রতিক কোনো বিষয় কাজ করে না।

তিনি বলেন, ভারতের কলকাতা ও দিল্লীতে জাতির পিতা শেখ মুজিবুর রহমানের নামে সড়ক রয়েছে। মহান মুক্তিযু’দ্ধে ভারতের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইন্দ্রিরা গান্ধী ও অটল বিহারী বাজপেয়ীয় অসামান্য অবদানের স্বীকুতি স্বরুপ তাদের নামে ঢাকার দুটি গুরুত্বপূর্ণ রাস্তার নামকরণের দাবি জানাই। এর মাধ্যমে ভারতের ১৩০ কোটি মানুষের দেশে বাংলাদেশের সম্মান বহুগুনে বেড়ে যাবে। এজন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে আহ্বান জানাই।

সংগঠনটির সহ-সভাপতি মুসনতাসির মামুন বলেন, ”মুজিববর্ষ নিয়ে অনেকেই বাড়াবাড়ি করছেন। দেশের প্রতিটি জেলাতে আজ বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল স্থাপন করা হয়েছে। এসবের চেয়ে যদি একটি করে ডিজিটাল স্কুল তৈরি করা যেতো তাহলে অনেকেই উপকৃত হতেন। মুজিব শতবর্ষ পালন কবে অথচ তার জীবনী নিয়ে ১০০ পৃষ্ঠার কোনো লেখা পাই না। বিশ্বে আজ সা’ম্প্রদা’য়িক, অ’শা’ন্তি শুরু হয়েছে।” সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন সংগঠনটির উপদেষ্টা আমজাত হোসেন, শ্যামলী চৌধুরী নাসরিন প্রমুখ।