বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সম্মেলনে গুরুত্বপূর্ণ পদ প্রত্যাশী সাবেক মেধাবী ছাত্রনেতা মোঃ আবু তাহের

রাজনীতি

ছাত্র জীবনে বরাবর ছিলেন মেধাবী। কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডে মেধাস্থান অর্জন করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে লোকপ্রশাসনে কৃতিত্বের সাথে অনার্স মাষ্টারস করেন। ছোট বেলা থেকে খেলাধূলার পাশাপাশি ছাত্র রাজনীতির সাথে জড়িয়ে পড়েন।বাতিসা হাই স্কুল, চট্টগ্রাম কলেজে ছাত্রলীগের সহকারী সাধারণ সম্পাদক ও সোহরাওয়ার্দী হোষ্টেল শাখা সাধারণ সম্পাদক হিসেবে মেধা ও সাহসীকতার সাথে দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে কারাবরণ ও মৃত্যুর মুখোমুখি হয়েছিলেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় জিয়াউর রহমান হল শাখা প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। এরশাদ স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনের নেতৃত্ব দানকারী নেতা বার বার গ্রেফতার ও কারাবরণ করেন।হাবিব – অসীমের নেতৃত্ব বাংলাদেশ ছাত্র লীগের কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ছিলেন। স্বেচ্ছাসেবকলীগের প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে কাজ করেন। জামাত বিএনপি অপরাজনীতির বিরুদ্ধে সব সময় মাঠে আন্দোলনের অগ্রভাগে নেতৃত্ব দিয়েছেন। ১/১১ অপশক্তির বিরুদ্ধে জনতার মন্ঞে সংগঠক হিসেবে কাজ করেন। অত্যন্ত সাদামাটা জীবন যাপনে অভ্যস্থ সামাজিক মানুষ হিসেবে অসংখ্য সামাজিক সংগঠনের সাথে জড়িত। সাংবাদিকতা ও মুক্তিযুদ্ধ গবেষক হিসেবে অনেক কাজ করছেন।মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিস্তম্ভ ও ভাষ্কর্য নিয়ে প্রকাশিত এলবাম চেতনায় একাত্তর উল্লেখযোগ্য। বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনে নির্মান করতে কাজ করছেন কয়েকটি প্রামাণ্যচিত্র। ছাত্র জীবন থেকে স্থানীয় ও জাতীয় নির্বাচনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা প্রসংশার দাবীদার।পারিবারিকভাবে আওয়ামী রাজনীতির আবহে বেড়ে উঠা সংগ্রামী কর্মী।বঙ্গবন্ধুর আদর্শে সদা সচেতন ও জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রতিটি কাজে দৃঢ়তার সাথে এগিয়ে যাচ্ছেন।সৎ, মেধাবী, স্বচ্ছ রাজনীতির মূল্যায়ন আগামীতে গুরুত্বপূর্ণ পদে আসবেন বলে তিনি জানান।