দ্রুত ক্রমবর্ধমান জনসংখ্যার শহরে তৃতীয় ঢাকা

প্রচ্ছদ

ঢাকা শহরে জনসংখ্যার চাপ বেড়েই চলছে। শিশুজন্ম ও গ্রাম থেকে আসাদের নিয়ে রাজধানীতে বর্তমানে ঘণ্টাপ্রতি প্রায় ৭০-৮০ জন নতুন সদস্য যুক্ত হচ্ছেন। ক্রমবর্ধমান এই জনসংখ্যার হারের দিক থেকে বিশ্বে শহরগুলোর মধ্যে তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে ঢাকা। আগে রয়েছে শুধু ভারতের দিল্লি ও চীনের সাংহাই।

বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বর্তমানে বিশ্বে ক্রমবর্ধমান জনসংখ্যার শীর্ষ ২০ শহরের মধ্যে ১৫টিই এশিয়া মহাদেশে অবস্থিত। বাকি পাঁচটি আফ্রিকা মহাদেশের।

বর্তমানে বিশ্বে সবচেয়ে জনবহুল শহরের তকমা জাপানের টোকিওর দখলে। প্রায় ৩ কোটি ৭০ লাখ লোকের বাস এই শহরে। তবে ২০২০ সালের মাঝামাঝিতেই টোকিওকে ছাড়িয়ে সবেচেয়ে জনবহুল শহরে পরিণত হবে দিল্লি। বর্তমানে এই শহরে প্রায় ৩ কোটি ৩০ লাখ লোক বাস করছে। যা ভারতের মোট জনসংখ্যার প্রায় ২ শতাংশ।

শহরে বাস করা মোট মানুষের সংখ্যার দিক থেকেও এগিয়ে রয়েছে ঢাকা। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ঢাকায় বর্তমানে প্রায় ২ কোটি ১০ লাখ লোকের বসবাস।

যা বাংলাদেশের মোট জনসংখ্যার ১০ দশমিক ৯ শতাংশ। ২০২০ সাল নাগাদ শহরটিতে বসবাসকারী মানুষের সংখ্যা আরও কয়েক লাখ বাড়তে পারে।

দ্রুত ক্রমবর্ধমান জনসংখ্যার শীর্ষ ২০ শহরের এই তালিকায় আরও রয়েছে ভারতের ব্যাঙ্গালুরু, সুরাট, হায়দরাবাদ ও চেন্নাই, চীনের চনকিং, বেইজিং, সুঝৌ, গুয়াংঝু, নানজিং ও জিয়ান, মিসরের কায়রো, পাকিস্তানের লাহোর ও করাচি, নাইজেরিয়ার লাগোস, তানজানিয়ার দারুস সালাম, কঙ্গোর কিনসাসা এবং অ্যাঙ্গোলার লুয়ান্ডা।