তোমাকে চাই

সাহিত্য ও দর্শন

আমার প্রথম প্রতিশ্রুতি;তোমাকে চাই,
আমার দ্বিতীয় প্রতিশ্রুতি ;তোমাকে চাই,
আমার শেষ প্রতিশ্রুতি;তোমাকে চাই।

রঙ্গালয় হতে উপাস্যলয়েও তোমাকে চাই
জীবন মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে ;তোমাকে চাই ।

পারস্য সাগরে শেষ আশ্রয়ে ভেসে বেড়ানো
ছোট্র ডিংগিটিতেও তোমাকে চাই!
সীমান্ত প্রহরীর বুলেটের ক্ষত-বিক্ষত
লাশের স্তূপে তোমাকে চাই।

৪৭সনের ,রানাঘাট কুপার্স উদ্বাস্ত শিবিরে
ক্ষুধার্ত সম্ভ্রমহীন বিধবা নারীর কান্নার আর্তনাদে
এক টুকরো রুটির মত
তোমাকে চাই——।।

৫২এর রক্তাক্ত রাজ পথে
উচ্ছ্বাসিত মিছিলের ;
মুষ্ঠিবদ্ধ হাতের মুখরিত ধ্বণিতে
রাষ্ট্র ভাষা বাংলা চাই—
স্লোগানের মত তোমাকে চাই।

ঢাকার কেন্দ্রীয় কারাগারে রাজবন্দী
মুনীর চৌধূরীর “কবর”নাটকের
ভাষা আন্দোলনে গুম হওয়া
অগনিত রক্তমাখা তরুনের
ফিরে আসা বিভৎস মৃত লাশ নিয়ে
আধপাগল মুর্দা ফকিরের উদ্ভট মিছিলের মত
তোমাকে চাই।

৭১সনের, যশোর রোডের
সারিবদ্ধ জনস্রোতে,
বয়সের ভারে নুঁইয়ে পড়া—
রমিজ চাচার খুঁড়িয়ে পথ চলা
শেষ ভরসার, কালো লাঁঠির মত!
শক্ত পায়ের মৃত্তিকা স্পর্শে—-
তোমাকে চাই।

লক্ষ কোটি জনতার সমুদ্র স্রোতে
প্রিয় কবির স্বদেশ প্রত্যাবর্তনে
জয় বাংলা,জয় বঙ্গ বন্ধু —
হর্শ বেগে কম্পিত বাতাসে
আবেগ আপ্লুত বিজয়ের হাঁসি মাখা মুখে,
মোটা ফ্রেমের কালো চশমার নিচে
গড়িয়ে অশ্রুঝরা চাপা কান্নার
বাঁধ ভাঙ্গা উল্লাসের মত
তোমাকে চাই//

বৈশাখী ঝড় কিংবা শ্রাবণের
মুষল ধারায় গা ভাসিয়ে
সমুন্নত শিরে দাড়িয়ে থাকা
লাল সবুজের বৃত্তে আঁকা
উড্ডীন পতাকার মত
তোমাকে চাই।

জাহানারা ঈমামের একাত্তরের
অগ্নিঝরা উত্তাল মার্চের
স্বাধীনতার স্বপ্ন বুননের দিনগুলোর মত——-
তোমাকে চাই।

শামসুর রাহমানের “স্বাধীনতা তুমি”
রবি ঠাকুরের অমর কবিতা আর অবিনাশী গান,
নজরুলের ঝাকরা চুলের বাবরি দোলানী
মহান পুরুষের সৃষ্টি সুখের উল্লাসে কাঁপা
প্রিয় পংক্তিমালার মত তোমাকে চাই।

মায়ের মুখে শেখানো প্রথম বর্ণ অ আ’র মত
তোমাকে চাই
অনিঃশেষ শব্দের যবনিকায়
তোমাকে চাই।
জীবন মরনান্তে শুধু তোমাকেই চাই ॥

কলমে….
এম কে জামান