খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের অবস্থা খুবই খারাপ: সাক্ষাৎ শেষে সেলিমা ইসলাম

প্রচ্ছদ

দুই বছরেরও অধিক সময় ধরে কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের অবস্থা খুবই খারাপ বলে জানিয়েছেন তার পরিবারের সদস্যরা।

খালেদা জিয়ার বোন সেলিমা ইসলাম বলেছেন, তার (খালেদা জিয়া) স্বাস্থ্যের অবস্থা আগের মতোই আছে। কোনো কিছুর পরিবর্তন হয়নি। তার স্বাস্থ্যের অবস্থা খুবই খারাপ। শ্বাসকষ্টের কারণে নিঃশ্বাস নিতে পারছেন না। তার বাম হাতটা সম্পূর্ণ বেঁকে গেছে। সোজা হয়ে দাঁড়াতে পারছেন না, খেতে পারছে না। খেলে বমি হয়ে যাচ্ছে। আমরা তাকে জীবিত অবস্থায় হাসপাতাল থেকে নিয়ে যেতে পারব কিনা- তা নিয়ে সন্দিহান।

শনিবার বিকালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে সেলিমা ইসলাম সাংবাদিকদের এ সব কথা জানান।

উন্নত চিকিৎসার জন্য মানবিক বিবেচনায় সরকারের কাছে কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবি জানান তিনি।

মামলার সর্বশেষ যে জামিন আবেদন করা হয়েছে সে বিষয়ে খালেদা জিয়া সবকিছু জানেন কিনা- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে সেলিমা ইসলাম বলেন, উনি এ সব বিষয়ে সবকিছু জানেন। আমরা তো বলছি সরকার অন্তত মানবিক দিকটা বিবেচনা করে বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিক।

এর আগে বিকাল ৩টার দিকে বিএসএমএমইউতে খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন পরিবারের পাঁচ সদস্য। সেখানে তারা প্রায় দেড় ঘণ্টা অবস্থান করেন। এ সময় বোন সেলিমা ইসলাম ছাড়াও ছিলেন খালেদা জিয়ার ছোট ভাই শামীম ইস্কান্দার ও তার স্ত্রী কানিজ ফাতেমা, ভাতিজা অভিক ইস্কান্দার ও ভাগ্নি সামিয়া ইস্কান্দার।

সর্বশেষ ২১ ফেব্রুয়ারি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন তার ছোট ভাই শামীম ইস্কান্দারসহ পরিবারের পাঁচ সদস্য।

জিয়া অরফানেজ ও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় ১৭ বছরের কারাদণ্ড নিয়ে বন্দি আছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। ২০১৮ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি দণ্ডিত হওয়ার পর তাকে নেয়া হয়েছিল পুরান ঢাকার কেন্দ্রীয় কারাগারে। কয়েক দফায় সেখান থেকে এনে তাকে বিএসএমএমইউতে চিকিৎসা দেয়া হয়। সর্বশেষ ২০১৯ সালের ১ এপ্রিল খালেদা জিয়াকে বিএসএমএমইউতে ভর্তি করা হয়। এরপর থেকে সেখানেই চিকিৎসাধীন আছেন তিনি।