খাটের ভেতর মিলল টিসিবির ১২৩৮ লিটার তেল

সারাদেশ

রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) কর্তৃক বক্স খাটের ভিতরে রক্ষিত অবস্থায় বসুন্ধরা ব্যান্ডের টিসিবি পণ্য ১২৩৮ লিটার সয়াবিন তেল উদ্ধার এবং আটক-০২ জন।
============================

অদ্য ১৫/০৪/২০২০খ্রিঃ রাত ১০.০০ ঘটিকায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার জনাব মোহাঃ আবদুল আলীম মাহমুদ বিপিএম মহোদয়ের নির্দেশনায় অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (ডিবি), জনাব উত্তম প্রসাদ পাঠক এর নেতৃত্বে এসি (ডিবি) জনাব মোঃ আলতাফ হোসেন, ইন্সপেক্টর (নিরস্ত্র) জনাব এবিএম ফিরোজ ওয়াহিদ, ইন্সপেক্টর (নিরস্ত্র) জনাব রাজেশ কুমার চক্রবর্তী, এসআই/ মোঃ নাহিদ, এসআই/ ছাইয়ুম, এসআই/সাদিকুল ও সঙ্গীয় অফিসার ও ফোর্স রংপুর মেট্রোপলিটন এলাকার মধ্যপার্বতীপুর, ওয়ার্ড-১৭, রোপ-১/৪, বাড়ী-২২ ধৃত মোঃ হানিফ মিয়ার (৪৭) বসতবাড়ী তল্লাশী করে শয়ন কক্ষের বক্স খাটের ভিতরে রক্ষিত অবস্থায় বসুন্ধরা ব্যান্ডের টিসিবি পণ্য ১২৩৮ লিটার সয়াবিন তেল উদ্ধারপূর্বক জব্দ করা হয়। যার আনুমানিক মূল্য ১,২৩,৮০০/- টাকা। উল্লেখ্য, উপরোক্ত সয়াবিন তেল আসামীগণ অবৈধ লাভের জন্য কালোবাজারী করে বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে মজুদ করে।

ঘটনার সাথে জড়িত আসামী মোঃ হানিফ মিয়া (৪৭), পিতা-মৃত হাজী আঃ মান্নান, সাং-মধ্যপার্বতীপুর, ওয়ার্ড-১৭, রোড-১/৪, বাড়ী-২২ এবং মোঃ লাল মিয়া (৫২), পিতা-মৃত আশরাফ আলী, সাং-মধ্যপার্বতীপুর, উভয় থানা-কোতয়ালী, রংপুর মহানগর দ্বয়কে গ্রেফতার করা হয়।

উল্লেখিত বিষয়ে ধৃত আসামীসহ ঘটনার সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

#সম্প্রতি সারা বিশ্বে ছড়ানো মরণব্যাধি করোনা ভাইরাসে বিপর্যস্ত গরিব-দুঃখী মানুষের জন্য সরকার প্রদত্ত টিসিবি পণ্য ন্যায্য মূল্যে বিক্রয়ের জন্য বলা হলেও কতিপয় অসাধু ব্যবসায়ী যারা অবৈধ লাভের উদ্দেশ্যে মজুদ করে তাদের বিরুদ্ধে রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ এর গোয়েন্দা শাখা (ডিবি)’র টিম এর অভিযান চলমান।