কুড়িগ্রামে চুরি মামলায় ছাত্রলীগ সভাপতি গ্রেফতার

রাজনীতি সারাদেশ

কুড়িগ্রামের উলিপুরে দোকান চুরি ও মাদক মামলায় ছাত্রলীগের সভাপতিসহ তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ।

শনিবার আটকের পর তিনজনকে রোববার বিকালে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার দুর্গাপুর ইউনিয়নের বাজারে আর এম ইলেক্ট্রনিক্স নামের ওয়ালটন শো-রুম গত শুক্রবার রাতে বন্ধ করে দোকান মালিক রাফেল মাহমুদ বাড়ি চলে যান।

পরদিন শনিবার সকালে দোকান খুলে শো-রুমের মালামাল এলোমেলো অবস্থায় দেখতে পান।




এসময় দোকানে রাখা ২০টি এন্ড্রয়েড ফোন এবং ক্যাশে রাখা নগদ দুই লাখ ৮০ হাজার টাকাও খোয়া যায়।

পরে দোকানে থাকা সিসি ক্যামেরার ভিডিও ফুটেজ দেখে চুরির সঙ্গে জড়িত একজনকে শনাক্ত করে শো-রুম মালিক রাফেল মাহমুদ উলিপুর থানায় লিখিত অভিযোগ করেন।

পরে শনিবার একাধিক মাদক মামলার আসামি হালিমুর রহমান দিগন্তকে (২৪) ১০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেটসহ চুরির ঘটনায় আটক করে পুলিশ।

তিনি রাজারহাট উপজেলার বালাকান্দি গ্রামের খান মোহাম্মদের পুত্র।

পরে তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে পুলিশ খোরশেদ আলমের পুত্র একাধিক মামলার আসামি দূর্গাপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি আরিফুল আলম কাজল (৩০) ও একই ইউনিয়নের নামাটারী গ্রামের মোজাফ্ফর আলীর পূত্র সুমনকে (২৮) চুরি যাওয়া দুইটি মোবাইল ফোনসহ আটক করে।




আটকৃতদের বিরুদ্ধে মাদক ও চুরির ঘটনায় পৃথক মামলা দায়ের করা হয়েছে।

উলিপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রাকিবুল ইসলাম রুবেল যুগান্তরকে বলেন, দূর্গাপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি কাজল দোকান চুরির সঙ্গে জড়িত থাকার প্রমাণ পাওয়া গেলে তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়া হবে।




উলিপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আনোয়ারুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আটক ৩ জনকে পৃথক মামলায় জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।