আদম তমিজিকে দুবাইয়ের বিলাসবহুল বাড়ি ইস্যুতে লিগ্যাল নোটিশ

অর্থনীতি

স্টাফ রিপোর্টার :

ব্রিটিশ নাগরিক জেরেমি উইলিম্যান বাংলাদেশের মাহবুব এন্ড কোম্পানির মাধ্যমে গত ২৮ জানুয়ারি ২০২০ তারিখ বাংলাদেশের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী, হক গ্রুপের ম্যানেজিং ডাইরেক্টর আদম তমিজি হকের বরাবর একটি আইনী নোটিশ পাঠিয়েছেন । আইনী নোটিশে ৫০ লক্ষ মার্কিন ডলার (প্রায় ৪২ কোটি টাকা) হিসাবসহ দাবী করা হয়।
নোটিশে উল্লেখ করা হয় জনাব আদম তমিজি হক দুবাইয়ে একটি বিলাসবহুল ভিলা বাড়ি ৬৬.৪ কোটি টাকা দামে কিস্তিতে কেনার জন্য একজন ব্রিটিশ নাগরিক জেরেমি উইলিম্যানের সাথে ২৮শে আগস্ট, ২০১৯ ইং তারিখে একটি চুক্তি করেন। মিঃ উইলম্যান ৮৪টি সমান কিস্তিতে বিভক্ত বিক্রয়মূল্য গ্রহণের জন্য সম্মত হন। ইতিমধ্যে, আদম তমিজিকে বিক্রয়মূল্যর পুরো পরিমাণ পরিশোধ করার আগ পর্যন্ত ভাড়াটিয়া হিসেবে থাকার জন্য চুক্তি বদ্ধ হন।

তবে কিছু কিস্তি দেয়ার পরেই আদম তমিজি হক কিস্তি প্রদান বন্ধ করে দিয়ে দুবাই ছেড়ে চলে যান বলে অভিযোগ করেন উইলিম্যান। তদ্ব্যতীত, উইলিম্যান জানতে পারেন যে আদম তমিজি হক দুবাইয়ে তার সমস্ত ব্যাংক একাউন্ট বন্ধ করে দিয়েছেন। উইলিম্যান বাড়িটি সরেজমিনে পরিদর্শন করতে গিয়ে দেখতে পান যে তার অনুমোদন বা সম্মতি ব্যাতিরেকে বাড়িটি থেকে অত্যন্ত দামী আসবাব পত্র, ইলেকট্রনিক আইটেম এবং ফিটিংস সরিয়ে ফেলা সহ পুরো সম্পত্তি মারাত্তকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করা হয়েছে। উল্লেখযোগ্য যে সমস্ত কিস্তি পরিশোধ না হওয়া এই মালামাল গুলো উইলিম্যানের মালিকানায় ছিল।

উইলিম্যান আদম তমিজি হকের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করলে আদম তমিজি প্রথমে বিভিন্ন ধরনের অজুহাত দেখাতে থাকেন এবং পরে সম্পূর্ণ যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেন। উপায়ান্তর না পেয়ে, উইলিম্যান বাংলাদেশের ল’ মাহবুব এন্ড কোম্পানি এবং দুবাইএর একটি ল ফার্মের মাধ্যমে আদম তমিজি হকের কাছে আইনী নোটিশ পাঠান। আইনী নোটিশে ৫০ লক্ষ মার্কিন ডলার (প্রায় ৪২ কোটি টাকা) হিসাবসহ দাবী করা হয়। দুবাই পুলিশকে বিষয়টি অবহিত করলে, দুবাই পুলিশ তদন্ত শুরু করেন এবং দুবাই আসামাত্র তাকে আদম তমিজিকে গ্রেফতারের নির্দেশনা জারী করেন। উইলিম্যান তার দাবী আদায়ের লক্ষ্যে আদম তমিজি হকের বিরুদ্ধে দুবাইয়ের আদালতের পাশাপাশি বাংলাদেশের আদালতে ফৌজদারি ও দেওয়ানি মামলা দায়ের করার প্রস্তুতি নিচ্ছেন মর্মে ল’ফার্ম মাহবুব এন্ড কোম্পানি থেকে জানানো হয়।