অাচ্ছাদন

সাহিত্য ও দর্শন

স্বপ্ন দেখি দু-নয়নে,
দেহের মানচিত্রে হায়েনার অাঁচর।
দু-চোখ; অঝোরে ঝরছে লাল রক্তরস
উষ্ণ হৃদয়ে তার__গোধূলি লেগে আছে।
খাদ্য পাগলাটা মরিয়া হয়ে খোঁজে এক মুঠো ওদন,
লীলাক্ষেত্রের পুব থেকে উত্তরে ,
দ্বারে-দ্বারে,ঘুরে ফেরে_____যাচ্ঞনা____মাগি।

পৌষের শীতে__স্তব্ধ গ্যাসপোস্টে চিহ্ন রেখে
নির্জীব রাস্তায় ছটা কম্বল গায়ে ভিখেরিনীটা
দিশেহারা ; পড়ছে সৃষ্টির প্রথম পান্ডুলিপি।
আবিষ্কারে ব্যস্ততম প্রাণ;
রপ্ত করে কোটি বছর আগে
অভ্যুক্ত মৃত সভ্যতাভিমানী’রে।



কোনো এক দার্শনিক বলেছিলেন,________
“যেদিন এ দেশে একটিও বৃদ্ধাশ্রম থাকবে না,
সেদিন বুঝে নিও আমরা ভালোবাসতে শিখে গেছি”।

যৌবন ভর্তি__ট্রামে_দক্ষ ব্যথানাশক পথ্য ‘ব্যবসায়ী’–
আলোর বেগের মত প্রাণ যেই যুবকের..
শৈশব,কৈশোর হাতছানি দেয় ;
বালির উপরে রাখা জোৎস্নায় খেলে যায় খেলা…
সন্ধায় জোঁনাকির মত।

লাল-নীল,কালো গাড়ি
ধুলোর মতোন জড়ো হয় যেখানে,
ধূসর ঘড়ি’র কথা না শোনা চঞ্চল প্রাণ
হাজার বছর ধরে এক অন্ধকার থেকে এসে
অন্য অাঁধারের দিকে ব্যাকুলা ঝিয়ারি দৌড়ায়
রহস্য__সূতো’র তৈরি মালা হাতে!
বি এম ডব্লিউ’,বেলকণীতে দাড়িয়ে
করে ঝাপসা গুঞ্জন!

কেন এমন ?
এরা তো নয় সভ্য মেদিনী’তে
শঁখের বাগানের গুল্ম-লতায় ; প্রভাতে ফুটে
সাঁমের বেলায় ঝরে যাওয়া কোন ঊন__ফুল,
এরা তো শুচি____মানবের দেশেই তৈরীকৃত ঈশ্বরের ভূল!!

লেখালেখি,

অড়ষী অনু রাহী