অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন করতে চায় সরকার

জাতীয়

৭ দফা দাবি নিয়ে প্রধানমন্ত্রী ও ১৪ দলের নেতাদের সাথে সংলাপে বসে ড. বি চৌধুরীর নেতৃত্বাধীন যুক্তফ্রন্ট। শুক্রবার (২ নভেম্বর) সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টায় এ বৈঠক শুরু হয়। শুরুতেই সূচনা বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন করতে চায় সরকার। যাতে জনগন তাদের নেতৃত্ব খুজে নিতে পারে।

শেখ হাসিনা বলেন, গণতান্ত্রিক ধারা অব্যাহত রাখা ছাড়া উন্নয়ন সম্ভব না। এ ধারা অব্যাহত থাকুক এবং উন্নয়নের গতি সচল থাকুক।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘অনেক ঘাত-প্রতিঘাত ও বাধা অতিক্রম করে আমরা গণতান্ত্রিক ধারাকে অব্যাহত রাখছি। জনগণের কল্যাণে কাজ করছি। দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। এই উন্নয়নের ধারা অব্যাহত থাকুক, এটাই আমরা চাই। গণতান্ত্রিক ধারা বজায় থাকলে দেশের মানুষ স্বাধীনভাবে ভোট দিতে পারে, আমরা সেই সুযোগ সৃষ্টি করতে চাই।’

 বৈঠকে নির্বাচনের আগে সংসদ ভেঙ্গে দেয়া না গেলেও নিষ্ক্রিয় করা, রাজবন্দিদের মুক্তি, সীমিত ক্ষমতা দিয়ে সেনাবাহিনী মোতায়েন, ইভিএম বাতিল, জাতীয় সরকার গঠণসহ ৭ দফা দাবি জানায় যুক্তফ্রন্ট।

যুক্তফ্রন্টের দেয়া অনেক দাবির সঙ্গেই সরকার একমত বলে জানিয়েছেন ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে যুক্তফ্রন্টের সংলাপ শেষে সাংবাদিকদের ওবায়দুল কাদের এ কথা বল

যুক্তফ্রন্ট চেয়ারম্যান এবং বিকল্পধারার প্রেসিডেন্ট এ.কিউ.এম বদরুদ্দোজা চৌধুরীর নেতৃত্বে সংলাপে অংশ নেয়, ১৫ সদস্যের প্রতিনিধি দল।

এর আগে, বিকল্পধারার মহাসচিব মেজর (অব.) আবদুল মান্নান আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের কাছে গতকাল (বৃহস্পতিবার) সন্ধ্যায় যুক্তফ্রন্টের প্রতিনিধি দলের নামের তালিকা পাঠিয়েছেন।

১৫ সদস্যের প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দিবেন যুক্তফ্রন্ট চেয়ারম্যান ও বিকল্পধারা বাংলাদেশএর প্রেসিডেন্ট সাবেক রাষ্ট্রপতি অধ্যাপক এ.কিউ.এম.বদরুদ্দোজা চৌধুরী।

প্রতিনিধি দলের সদস্যরা হচ্ছেন:
সাবেক রাষ্ট্রপতি অধ্যাপক এ.কিউ.এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী, মেজর (অব.) আবদুল মান্নান, জনাব শমসের মবিন চৌধুরী, জনাব গোলাম সারোয়ার মিলন, জনাব আবদুর রউফ মান্নান, ইঞ্জিনিয়ার মুহম্মদ ইউসুফ, মিসেস মাহমুদা চৌধুরী, ব্যারিস্টার ওমর ফারুক, জনাব এইচ. এম গোলাম রেজা, জনাব নাজিম উদ্দিন আল আজাদ, জনাব দেলোয়ার হোসেন, জনাব জেবেল রহমান গানি, জনাব এম, গোলাম মোস্তফা ভুইয়া, আলহাজ্ব খোন্দকার গোলাম মোর্ত্তুজা, শেখ আসাদুজ্জামান।