জেল হত্যা দিবস : খন্দকার মোশতাক, যে-দলের দায় !!

জাতীয় রাজনীতি

বাংলাদেশের রাজনীতিকে যিনি সবচেয়ে বেশী কলঙ্কিত ও রক্তাক্ত করেছেন তিনি হলেন খন্দকার মোশতাক, বঙ্গবন্ধুর আওয়ামীলীগ সরকারের বিদ্যুৎ, সেচ ও বন্যা নিয়ন্ত্রন মন্ত্রী এবং বাকশালী সরকারের অর্থ মন্ত্রী। আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠাকালীন সময় থেকে শুরু করে বঙ্গবন্ধু যতদিন আওয়ামীলীগ করেছেন তিনিও ততদিন আওয়ামীলীগের গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বে ছিলেন।
তিনি ১৯৭১ এ মুজিব নগর সরকারের পররাষ্ট্র, আইন ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রীর দায়িত্বও পালন করেন।

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যার পর ক্ষমতা দখল করেছিলেন বঙ্গবন্ধুর সরকারের অর্থমন্ত্রী ও বাকশালের কার্যকরী কমিটির ১৫ সদস্যের ৪ নম্বর সদস্য সেই খন্দকার মোশতাক আহমেদ। আশ্চর্য্যজনক বিষয় হল বঙ্গবন্ধুর রক্তাক্ত লাশ সিঁড়িতে রেখেই তার বাকশালের মন্ত্রীরা খন্দকার মোশতাকের মন্ত্রীসভায় যোগ দিয়েছিলেন। তৎকালীন সংবিধান অনুসারে সেই সরকারও বাকশালী সরকার, কারন সংবিধানে তখনো একদলীয় বাকশালী সরকারের বিষয়টি প্রতিষ্ঠিত। পরবর্তীতে খন্দকার মোশতাকই দেশে প্রথম সামরিক আইন জারী করেন। এবং আলোচিত ইনডেমনিটি অধ্যাদেশও পাশ করেন। আর এই ইনডেমনিটি বিলের রচয়িতা হলেন বঙ্গবন্ধু সরকারের আইন মন্ত্রী পরবর্তীতে মোশতাকের বাকশালী সরকারেরও আইনমন্ত্রী মনোরঞ্জন ধর।

আওয়ামীলীগ নেতা খন্দকার মোশতাকের বঙ্গবন্ধু হত্যা ও জেল হত্যার ষড়যন্ত্র সহ কুখ্যাত কর্মকান্ডের দায় বঙ্গবন্ধু সরকারের ২১ জন মন্ত্রীর যোগ দেয়া মোশতাকের মন্ত্রীসভা সবার উপরেই বর্তায়। আর এর দায় আওয়ামীলীগ কিংবা বঙ্গবন্ধুর তৎকালীন বাকশাল এড়ানোর কোন সুযোগ আছে কীনা তা সঠিক ইতিহাস ও জনগনের উপরই বিচার্য হয়ে থাকবে ।

লেখক : এম আমিনুল ইসলাম মুনির
আইনজীবী, বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট
adv_aimunir@yahoo.com

1 thought on “জেল হত্যা দিবস : খন্দকার মোশতাক, যে-দলের দায় !!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *