খালেদা জিয়াকে সাজা দেয়া জজকে পুরস্কৃত করেছে সরকার : ব্যারিস্টার খোকন

আইন আদালত

সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সম্পাদক ও বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ব্যারিস্টার এএম মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেছেন, যে বিচারক আক্তারুজ্জামান বেগম খালেদা জিয়াকে অবৈধভাবে মিথ্যা মামলায় সাজা দিয়েছিলেন তাকে পুরষ্কার স্বরূপ মহামান্য হাইকোর্ট বিভাগের বিচারপতি বানিয়ে বিচারক নিয়োগ প্রক্রিয়াকে প্রশ্নবিদ্ধ করেছে সরকার। তিনি বলেন, যোগ্যতাসম্পন্ন অনেক বিচারক থাকা সত্ত্বেও তাদের কেন নিয়োগ দেয়া হলো? খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের বিরুদ্ধে সাজা দেয়াই কি তাদের নিয়োগের মাপকাঠি? ১৩৭ জনকে সুপারসিড করে নিয়োগ দেয়া হয়েছে বেগম খালেদা জিয়াকে সাজা দেয়ার কারণে। তিনি বলেন, বিরোধী দলের নেতাকে শাস্তি দেয়ার জন্য পুরস্কার দেয়ার জায়গা সুপ্রিম কোর্ট হতে পারে না। এভাবে বিচারক নিয়োগ করা হলে দেশের মানুষ ন্যায় বিচার পাবে না।

সোমবার সন্ধ্যায় সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির ১ নং হলে খালেদা জিয়ার শারীরিক সুস্থতার জন্য দোয়া ও মুক্তির দাবিতে এক প্রতিবাদ সভার প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। খালেদা জিয়ার মুক্তি আইনজীবী পরিষদ এ প্রতিবাদ সভার আয়োজন করে। অ্যাডভোকেট মনির হোসেনের সভাপতিত্বে এবং অ্যাডভোকেট হেমায়েত উদ্দিন বাদশা ও এমদাদুল হকের যৌথ উপস্থাপনায় অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন-সুপ্রিম কোর্ট বারের সাবেক সম্পাদক অ্যাডভোকেট সাইদুর রহমান, সাবেক সিনিয়র সহ-সভাপতি ওয়ালিউর রহমান খান, সাবেক সহ সভাপতি গোলাম মোস্তফা, ইসলামী ঐক্যজোটের চেয়ারম্যান মাওলানা আব্দুর রকিব, অ্যাডভোকেট মির্জা আল মাহমুদ, অ্যাডভোকেট এম আমিনুল ইসলাম মুনির, কাজী আরিফুল ইসলাম, নাসিমুল ইসলাম মন্ডল, রবিউল হোসেন, বক্তিয়ার হোসেন, আবু হানিফ প্রমুখ। অনুষ্ঠানের সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন এডভোকেট এসএম জুলফিকার আলী জুনু ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *